পিওলে ডি’অর ২০১৮


পর্বতারোহণের বিশুদ্ধ চর্চা ও শ্রেষ্ঠত্বের উপর দেওয়া সবচাইতে সম্মানজনক পুরষ্কার হিসেবে খ্যাত পিওলে ডি’অর (সোনালী গাইঁতি) ২০১৮ সালের বিজয়ীদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। বিশ্বের সেরা আল্পাইনিষ্টের দ্বারা গঠিত জুরি বোর্ড বাছাই করা গত বছরের অনবদ্য ৫৮ টি পর্বতাভিযানের মধ্য থেকে তিনটি দলকে এই পুরষ্কারের জন্য বেছে নেন।

প্রেস বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়,

গাশারব্রাম-১ আরোহণের জন্য [ডেনেক হাক এবং মারেক হোলসেক]


পাকিস্থানের শিসপারে চূড়া আরোহণের জন্য [জাপানী পর্বতারোহী কাযুইয়া হিরাইডে ও কেনরো কাজিমা]


উত্তর-পশ্চিম দেয়াল দিয়ে নুপৎসে আরোহণের জন্য [ফ্রেডরিক ডিগলেট, বেঞ্জামিন গুইগোনে ও হেলিয়াস মেলিরিওক্স]

এছাড়া ভারতের নীলকণ্ঠ চূড়া আরোহণে জন্য চ্যানটেল অ্যাস্তোরগা, অ্যানি গিলবার্ট ও জ্যাসন থপসন এবং গত বছর পর্বতারোহণে অসামান্য অবদান রাখার জন্য অ্যা লেক্স হননল্ড বে বিশেষ সম্মাননা প্রদান করা হচ্ছে।

এ বছর স্লোভেনিয়ান পর্বতারোহী আন্দ্রে ট্রেমফেলজকে আজীবন সম্মাননা পুরষ্কারে ভূষিত করা হয়। উল্লেখ্য, ১৯৯২ সালেও নতুন পথে কাঞ্চনজঙ্ঘার পশ্চিম চূড়া অ্যাল্পাইন স্টাইলে আরোহণের জন্য তিনি পিওলে ডি’অর পুরষ্কার পেয়েছিলেন।


পিওলে ডি’অর ২০১৮ 


ছবি ©Marek Holeček


গাশারব্রাম-১ (৮০৬৮ মিটার)

পর্বতশ্রেণি: কারাকোরাম /পাকিস্তান

অভিযাত্রী: ডেনেক হাক এবং মারেক হোলসেক (চেক রিপাবলিক)

গত বছর জুলাই ২৫ থেকে বেইজ ক্যাম্প থেকে অভিযান শুরু করে অগাস্টের ১ তারিখের মধ্যে গাশারব্রামের ২৬০০ মিটারের দক্ষিণ-পশ্চিম দেয়াল দিয়ে সম্পূর্ণ নতুন পথে চূড়ায় আরোহণ করেন। এই পথটির তারা নাম রাখেন ‘স্যাটিসফেকশন’।



ছবি ©Kazuya Hiraide


শিসপারে (৭৬১১ মিটার)

পর্বতশ্রেণি: কারাকোরাম /পাকিস্থান

অভিযাত্রী: কাযুইয়া হিরাইডে ও কেনরো কাজিমা (জাপান)

জাপানী দুই পর্বতারোহী পাকিস্থানের কারাকোরাম রেঞ্জের ৭৬১১ মিটার উচ্চতার পর্বত শিসপারের উত্তর-পূর্ব দেয়াল দিয়ে ২৭০০ মিটারের আরোহণ মাত্র ৭ দিনে সম্পন্ন করেন।



ছবি ©Degoulet/Guigonnet/Millerioux


নুপৎসে নুপ-II (৭৭৪২ মিটার)

পর্বতশ্রেণি: হিমালয় /নেপাল

অভিযাত্রী: ফ্রেডরিক ডিগলেট, বেঞ্জামিন গুইগোনে ও হেলিয়াস মেলিরিওক্স (ফ্রান্স)

নেপালের খুম্বু অঞ্চলের নুপৎসে পর্বতের দক্ষিণ দেয়াল দিয়ে সম্পূর্ণ নতুন পথে এই তিন ফ্রেঞ্চ অ্যাল্পাইনিস্ট ২২০০ মিটারের আরোহণ মাত্র ৭ দিনে সম্পন্ন করেন।


বিশেষ সম্মাননা


ছবি © Tad McCrea


নীলকণ্ঠ (৬৫৯৬ মিটার)

পর্বতশ্রেণি: হিমালয় / ভারত

অভিযাত্রী:  চ্যানটেল অ্যাস্তোরগা, অ্যানি গিলবার্ট ও জ্যাসন থপসন (আমেরিকা)

আমেরিকান তিনজন অ্যাল্পাইনিস্ট নীলকণ্ঠ পর্বতের ৭০ ডিগ্রি ঢালের ‘অবসকিউর্ড পারসেপশন’ নামের ১৪০০ মিটারের দক্ষিণ-পশ্চিম দেয়াল মাত্র ৫ দিনে আরোহণ করে এই সম্মাননা পাচ্ছেন।


ফরাসি সাময়িকী ‘Montagnes and Groupe de Haute Montagne’ প্রতি বছর পর্বতারোহণে বিশেষ কৃতিত্বের জন্য পিওলে ডি’অর নামের এই ঐতিহ্যবাহী সম্মাননা প্রদান করে থাকে। এই সম্মাননা প্রতিযোগিতা উসকে দেয়ার বদলে খেলোয়ারসুলভ আচরণকে অনুপ্রাণিত করে আসছে। পুরষ্কার দেওয়ার জন্য, কে কতটা দূরহ আর দূর্গম পথে আরোহণ করল শুধুমাত্র এটি বিবেচনা করা হয় না। সেই সাথে অভিযানের বিশুদ্ধতা, অনুসন্ধানী চেতনা, পরিকল্পনায় নান্দনিকতা ও নতুনত্ব, নিজের প্রতি বিশ্বাস ও স্বনির্ভরতা, বিপদের সাথে খাপ খাইয়ে নেওয়ার ক্ষমতা, স্বচ্ছতা আর দক্ষতার সাথে যথাসম্ভব কম রসদের ব্যবহার, মানুষ ও প্রকৃতির প্রতি আচরণ আর পরবর্তী প্রজন্মের পর্বতারোহীদের জন্য অবদান- এইসব কিছু সমান গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করা হয়।

এ বছর ২০ থেকে ২৩ সেপ্টেম্বর পোল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ২৩তম লেডেক মাউন্টেইন ফেস্টিভালে বিজয়ীদের হাতে পুরষ্কারগুলো তুলে দেওয়া হবে।

(Visited 1 times, 1 visits today)

২ thoughts on “পিওলে ডি’অর ২০১৮

  1. বিনীতভাবে উল্লেখ করতে চাই যে ইংরেজিতে Gasherbrum হিসেবে লেখা শব্দটিকে বাংলায় গাশারব্রাম লেখা উচিত; ‘গাসেব্রাম’ নয়।

মন্তব্য করুন

*Please Be Cool About Captcha. It's Fun! :)